1. news@esomoy.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  2. admin@esomoy.com : admin :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৭:১২ পূর্বাহ্ন

আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ভাঙ্গায় ২ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে মহিলাসহ আহত ৬

মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান
ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

ভাঙ্গা, ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ

ফরিদপুরের ভাঙ্গায় আধিপত্য বিস্তার ও তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ২ গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় মহিলা সহ ৬ জন লোক আহত হয়েছে।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় ভাঙ্গা উপজেলার নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের বাররা ও ফুকুরহাটি গ্রামের লোকজনের সাথে এঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত মর্জিনা বেগম(৪৫), রেহানা বেগম (৪০), মুন্নি আক্তার (২০) ও আলামিন মীরকে (২২) সদরপুর হাসপাতালে ভর্তি এবং বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া   হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা যায়, নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের বাররা গ্রামে ১২৭ তম শাহ সূফী হযরত রহমান ফকিরের ওরশ মোবারক উপলক্ষে মেলার আয়োজন চলছিল।

উক্ত মেলায় বাররা গ্রামের আলামিন ও মুন্নার সাথে ফুকুরহাটি গ্রামের নুরু খাঁর ছেলে রতনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়।

এ ঘটনার সুত্র ধরে আলামিনের দলের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ওরস মোবারকের স্থলে চলে আসে।

তখন মেলায় আগত লোকজন ও ফুকুরহাটি গ্রামের লোকজন সম্মিলিতভাবে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাদেরকে ধাওয়া করে।

এসময় ৭/৮ বাড়ি ঘর ভাংচুরের শিকার হয়।

সংবাদ পেয়ে ভাঙ্গার থানা পুলিশ শুক্রবার রাতেই ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি শান্ত করে।

পরিস্থিতি শান্ত রাখতে শনিবার এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

বাড়িঘর ভাঙচুরে ক্ষতিগ্রস্তরা হল- আলামিন, বারেক মীর, লুৎফর মীর, জব্বার মীর, জহুর জমাদ্দার , ইউনুস জমাদ্দার ও মর্জিনা বেগম।

এ বিষয়ে নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের  আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাররা গ্রামের আলামিন জানান, আমরা কাজী জাফরউল্লার নৌকার নির্বাচন করেছি।

আর ফুকুরহাটি  গ্রামের রতন ও জুয়েল নিক্সন চৌধুরীর ঈগল প্রতীকের নির্বাচন করেছে।

আমরা নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় আমাদের উপরে হামলা করে তারা।

এবিষয় স্থানীয় নুরুল্লাগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম তারেক জানান, বাররা বাজার প্রতিবছর রহমান শাহের ওরশ উপলক্ষে মেলা আয়োজন করা হয়।

উক্ত মেলায় বাররা গ্রামের আলামিন ও মুন্নার সাথে পার্শ্ববর্তী পুকুরহাটি গ্রামের নুরু খাঁর ছেলে রতন খাঁ সাথে কথা কাটাকাটির হয়।

এরপর তখন মেলার লোকজন  রতনের পক্ষ নিয়ে তোর ঘরে আলামিন  মারধর করে।

এ বিষয়ে ভাঙ্গা থানার এস,আই আব্দুল হক জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বাররা গ্রামের আলামিন ও ফুকুরহাটি গ্রামের রতনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়।

এ নিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় দুই পক্ষের মধ্যে গোন্ডগোল হয়েছে।

রাতেই ভাঙ্গা থানায় একটা অভিযোগ দিয়েছে।

তদন্ত-পূর্বক দোষীদের বিরুদ্ধে  আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বর্তমানে পরিস্থিতির শান্ত আছে।

এ বিষয় ভাঙ্গা থানার ওসি মামুনুর রশিদ জানান জানান , আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ২ পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

কয়েকটি বাড়ি ভাঙচুর হয়েছে।

তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2019
Design By Raytahost