1. news@esomoy.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  2. admin@esomoy.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১২:১৬ পূর্বাহ্ন

চাল বিতরণে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ বানারীপাড়ার সলিয়াবাকপুর ইউপি চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান

মোঃ জাকির হোসেন
ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

বানারীপাড়া

বানারীপাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি//

বরিশালের বানারীপাড়ায় সরকার নির্ধারিত মাছ ধরা নিষিদ্ধের সময় জেলে কার্ডের বিপরীতে চাল বিতরণে প্রকৃত জেলেদের বাদ দিয়ে চেয়ারম্যানের পছন্দের লোকদের চাল দেবার অভিযোগ উঠেছে খোদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। উপজেলার সৈয়দকাঠী ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের ১৪ জন চাল বঞ্চিত অসহায় কার্ডধারী জেলে বানারীপাড়া নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ এনে চাল পাবার আবেদন জানান।

ভূক্তভোগী জেলেরা অভিযোগ করেন, তারা বিগত দিনে সব সময় চাল পেয়ে আসছেন, অথচ ২০২৪ সালের নিষেধাজ্ঞার সময় চাল প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।

চাল বঞ্চিত জেলেরা সলিয়াবাকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমানের কাছে চাল না পাওয়ার কারন জানতে চাইলে তিনি অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলে তারা জানান।

এমনকি এক জেলেকে মারার জন্য উদ্ধত হন বলে ঐ ভুক্তভোগী জেলে অভিযোগ করেন।

অন্য এক বয়স্ক জেলেকে অনেক সময় বসিয়ে রেখে চাল নেই বলে চলে যেতে বলেন।

ভুক্তভোগী জেলেরা বলেন আমরা নামের তালিকা দেখতে চেয়েছি চেয়ারম্যান তা দেখতে দেয়নি।

চেয়ারম্যান তার পছন্দের লোকদের চাল দিয়েছেন যারা প্রকৃত জেলে নয় বলে ঐ জেলেরা দাবী করেন এবং সুষ্ঠ তদন্তের ও দাবী জানান।

কান্না জড়িত কন্ঠে এক জেলে বলেন, আমাদের স্ত্রী সন্তান নিয়ে এই ৬ মাস না খেয়ে মরতে হবে। আমাদের একমাত্র আয়ের পথ নদীতে মাছ ধরা। প্রধান মন্ত্রীর দেয়া চাল দিয়ে নিষিদ্ধ ৬ মাস আমরা কোনমতে খেয়ে বেঁচে থাকি। এ বছর চেয়ারম্যান আমাদের পেটে লাথি মারল। এখন হয় আমাদের চুরি করতে হবে না হয় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে নদীতে যেতে হবে। আমরা এই দুর্নীতির সুষ্ঠ তদন্ত চাই। যাদের চাল দেয়া হয়েছে তারা জেলে নয় যা তদন্ত করলে প্রমান পাওয়া যাবে এমনটাই অভিযোগ ঐ জেলেদের।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2019
Design By Raytahost