1. news@esomoy.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  2. admin@esomoy.com : admin :
শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নির্মাণ শ্রমিক নিহত

মোঃ মোখলেছ মোল্লা
ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

কাভার্ড ভ্যানের চাপায় নির্মাণ শ্রমিক নিহত

স্টাফ রিপোর্টারঃ

শরীয়তপুরে কাভার্ড ভ্যান ও নছিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নির্মাণ শ্রমিক নিহত এবং ছয়জন আহত হয়েছেন।

নিহত ব্যাক্তির নাম লোকমান শেখ।

১২ই মার্চ মঙ্গলবার সকাল ০৬টার দিকে সদর উপজেলায় শরীয়তপুর-চাঁদপুর সড়কে আমিন বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত লোকমান শেখ (৪৫) উপজেলার রুদ্রকর ইউনিয়নের হোগলা মাকসাহার এলাকার মৃত মনব শেখের ছেলে। তাঁর স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে।

দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

থানা–পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লোকমান শেখ নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করে সংসার চালাতেন।

মঙ্গলবার সকালে  তিনিসহ সাতজন শ্রমিক নছিমনে চড়ে হোগলা মাকসাহার থেকে মনোহর বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন।

আমিন বাজার এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা চাঁদপুরগামী একটি কাভার্ড ভ্যানের নছিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

লোকমান সড়কে ছিটকে পড়েন এবং কাভার্ড ভ্যানের চাকায় পৃষ্ঠ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

নছিমনটি ছিটকে সড়কের পাশে খালে পড়ে। পরে স্থানীয় লোকজন এসে আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে পাঠান।

এ সময় উত্তেজিত জনতা কাভার্ড ভ্যান ভাঙচুর করেন। পালং মডেল থানার পুলিশ সদস্যরা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ফারুক হোসেন নামের এক ব্যক্তি বলেন, নছিমনে করে কয়েকজন মনোহর বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন।

উল্টো পাশ থেকে বেপরোয়া গতিতে আসা কাভার্ড ভ্যান নছিমনটিকে ধাক্কা দেয়। লোকমান সড়কের ওপর পড়ে যান। তাঁর ওপর দিয়ে কাভার্ড ভ্যান চলে যায়।

নিহত লোকমান শেখের চাচাতো ভাই মোহাম্মদ হান্নান বলেন, কাজে যাওয়ার পথে কাভার্ড ভ্যানের চাপায় লোকমান নিহত হয়েছেন।

সে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। এখন পরিবারটি যেন ভালোভাবে বাঁচতে পারে, সরকার থেকে যেন সেই ব্যবস্থা করা হোক।

যাদের অবহেলায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে, তাদের বিচার করতে হবে।

পালং মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইফতেখারুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দ্রুত ছুটে আসি। এ ঘটনায় একজন মারা গেছেন।

আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর কাভার্ড ভ্যানের চালক পালিয়ে গেছেন।

তাঁকে ধরার চেষ্টা চলছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

মো.মি/এসময়। 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2019
Design By Raytahost