1. news@esomoy.com : বার্তা বিভাগ : বার্তা বিভাগ
  2. admin@esomoy.com : admin :
মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৩ অপরাহ্ন

বগুড়ায় করতোয়া নদী পুনঃখনন কাজের উদ্বোধন!

এম এ শাহিন
ইপেপার / প্রিন্ট ইপেপার / প্রিন্ট

বগুড়ায় করতোয়া নদী পুনঃখনন কাজের উদ্বোধন!

জেলা প্রতিনিধি বগুড়াঃ

বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও তৎসংলগ্ন এলাকায় করতোয়া নদী পুনঃখনন ও ডানতীরে স্লোপ প্রটেকশন কাজ শীর্ষক প্রকল্পের সদর উপজেলা অংশে নদী খনন কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) দুপুরে মাটিডালী ব্রীজ এলাকায় বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) বগুড়া জেলা কার্যালয়ের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

মোবাইলে অডিও কলে খনন কাজের উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি বগুড়া-৬ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, স্মার্ট বগুড়া গড়ার অংশ হিসেবেই করতোয়া নদী খননসহ বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

এছাড়াও করতোয়ার পশ্চিম পাশ দিয়ে একটি রাস্তা নির্মান করে শহরের যানজট নিরসনে চেষ্টা চলছে।

নদীর নাবত্যসহ সৌন্দর্য্য বর্ধনে যেসব প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে সেগুলো বাস্তবায়ন হলে স্মার্ট বগুড়ায় পরিণত হবে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো) বগুড়া জেলা কার্যালয়ের প্রকল্প পরিচালক ও নির্বাহী প্রকৌশলী নাজমুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সফিক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজা পারভীন।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন জেলা যুবলীগের সাধারণ আমিনুল ইসলাম ডাবলু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ডালিয়া নাসরিন রিক্তা, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান প্রমুখ।

এসময় ঠিাকাদারি প্রতিষ্ঠান আমিন এন্ড কোং এর প্রতিনিধি হুমায়ন কবিরসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, করতোয়া নদীর নাব্যতা ফেরাতে প্রায় ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৭ কিলোমিটার খনন কাজ শুরু হয়েছে।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার বগুড়া সদর অংশে এ কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। এর আগে গত বুধবার বগুড়ার শাজাহানপুর অংশে খনন কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে।

করতোয়া নদী খননের পাশাপাশি এসপি ব্রিজ থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় পর্যন্ত ওয়াকওয়ে হবে।

সৌন্দর্য্য বর্ধনে গাছ লাগানো হবে। চিত্তবিনোদনের পাশাপাশি নির্মল বাতাস গ্রহণে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।

মো.মি/ এসময়। 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2019
Design By Raytahost